রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ১০:০৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
আম নিয়ে কষ্টগাঁথা কাজিপুরে বসুন্ধরা শুভসংঘের উদ্যোগে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান বন্ধ থাকা সেফটিক ট্যাঙ্কে নেমে প্রাণ হারালো কুষ্টিয়ার দুই যুবক সামাজিক অপরাধ প্রতিরোধে মসজিদে ওসি’র জনসচেতনতা মূলক বক্তব্য কামারখন্দে কোনাবাড়ীতে উৎসবমুখর পরিবেশে কবরস্থানে বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণ কাজ উদ্বোধন সিরাজগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির চরম অবনতি উল্লাপাড়ায় ছাত্র ছাত্রীদের মাঝে গাছের চারা বিতারন বিতর্কিত সেই পিআইও মাহাবুব বদলি হয়ে উল্লাপাড়া আসার পাঁয়তারা কোটা আন্দোলন:আজ থেকে সড়ক বন্ধ করে বিশৃঙ্খলা করলে কঠোর ব্যবস্থা:মহিদ কেরালায় হারানো আইফোন কামরাঙ্গীরচর থেকে উদ্ধার, দুই ভাই গ্রেফতার

পর্যটনকেন্দ্রের টয়লেটে বসানো হলো ‘টাইমার’

রিপোর্টারের নাম / ৬৯ বার দেখা হয়েছে
আপডেট করা হয়েছে

চীনের একটি জনপ্রিয় পর্যটনকেন্দ্রের নারীদের টয়েলেটে টাইমার বসিয়েছে কর্তৃপক্ষ। টাইমারের মাধ্যমে বাইরে থেকে দেখা যাবে একজন মানুষ টয়লেটে কতটা সময় ব্যয় করছেন।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, উত্তর চীনের শানসি প্রদেশের ইউনগাং গ্রোটসের টয়লেটে বসানো হয়েছে এসব টাইমার। যেখানে প্রতি বছর লাখ লাখ পর্যটক ঘুরতে যান।

ইউনগাং গ্রোটস একাডেমির তথ্যানুযায়ী, গত বছর ৩ মিলিয়নেরও বেশি দর্শকদের এখানে এসেছে। যার ফলে তাদের আয় হয়েছে ২০০ মিলিয়ন ইউয়ান (২৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার)।
 

সিএনএনের প্রতিবেদন অনুযায়ী, সম্প্রতি চীনের বিভিন্ন গণমাধ্যম ও সামাজিক মাধ্যম সাইটে একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে। যেখানে দেখা যায়, নারীদের টয়লেটের সামনে টাইমার সেট করা হয়েছে। প্রতিটি টয়লেটে সময় গণনার জন্য ডিজিটাল কাউন্টার রয়েছে। কোনো টয়লেট যখন ফাঁকা থাকে তখন সেখানে সবুজ রঙের ‘খালি’ লেখা প্রদর্শন করছে। এ ছাড়া কেউ ভেতরে প্রবেশ করলে দরজার সামনের টাইমারে মিনিট ও সেকেন্ড উঠছে।
 
পর্যটনকেন্দ্রটিতে বেড়াতে যাওয়া একজন সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘প্রথমে আমি ভেবেছিলাম জনগণকে জনসাধারণের সম্পদের একচেটিয়া দখল এবং বিশ্রামাগারে খুব বেশি সময় কাটাতে বাধা দেয়ার জন্য উন্নত এই টাইমারগুলো বসানো হয়েছে। কিন্তু আমিও কিছুটা বিব্রত বোধ করেছি, কারণ আমাকে দেখা হচ্ছে আমি কতক্ষণ আছি।’
টাইমার বসানোর পক্ষে অন্য একজন বলেছেন, ‘আমি মনে করি এটা ভালো। কিছু বয়স্ক লোক বিশ্রামাগারে অজ্ঞান হয়ে যেতে পারে। কেউ কেউ সাহায্যের জন্য বলতেও পারে না।
 
ইউনগাং বৌদ্ধ গুহার একজন কর্মী বলেছেন, অনেক বেশি পর্যটক আসায় এই টাইমার লাগানো হয়েছে। তবে টয়লেট ব্যবহারের কোনো সময় নির্দিষ্ট করে দেয়া হয়নি।
 
পর্যটন কেন্দ্রটির আরেকজন কর্মী বলেছেন, গত ১ মে থেকে টয়লেটগুলোতে এই টাইমার রয়েছে। যখন কেউ টয়লেটে প্রবেশ করেন তখন টাইমারে সময় গণনা শুরু হয়। যতক্ষণ দরজা বন্ধ থাকে এটি ততক্ষণ চলতে থাকে। যখন টয়লেটে কেউ থাকেন না তখন সেখানে ‘খালি’ লেখা ভেসে থাকে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
Theme Created By Limon Kabir