• বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:৫৭ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ

২০ ফেব্রুয়ারি সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সভা

/ ২৯৩ বার দেখা হয়েছে
আপডেট করা হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক:
আগামীকাল সোমবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টায় সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সভা আহবান করা হয়েছে। সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের সিনিয়র সদস্য বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা বাসসের জেলা প্রতিনিধি শহিদুল ইসলাম ফিলিপস এই সভা আহবান করেছেন। সভায় ৪৭ জন সদস্যকে উপস্থিত থাকার পত্র প্রদান করা হয়েছে।

ঐতিহ্যবাহী সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের বিগত কার্যকরী কমিটির ঘোষিত নির্বাচন কমিশন এর নিকট সঠিক ভোটার তালিকা প্রদান না করায় ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে এই নির্বাচন পরিচালনায় অপারগতা প্রকাশ করা হয়। এদিকে দুই বছর মেয়াদের কমিটি ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ মেয়াদ উত্তীর্ণ করেছে। গঠনতন্ত্রের অনুচ্ছেদ-৮ নির্বাচন ধারা-১ এর খ মতে এই সভা আহবান করা হয়েছে বলে আহবায়ক শহিদুল ইসলাম ফিলিপস জানিয়েছেন।

সাধারণ সভা আহবানকে কেন্দ্র করে প্রেসক্লাবের সকল সদস্যদের মাঝে উৎসবের আমেজ সৃষ্টি হয়েছে। এই সভা আহবানকে ইতিমধ্যে অনেকেই স্বাগত জানিয়েছেন। সভা আহবানের মধ্য দিয়ে বিগত কমিটির জটিলতা প্রাথমিকভাবে অবসান ঘটলো বলে অনেকেই মনে করেন।

জানা যায়, ইতিহাস ঐতিহ্যের ধারক ও বাহক সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের নির্বাচন ২০২৩-২০২৪ ও কমিটির হিসাব প্রদান না করা, একটিও বার্ষিক ও সাধারণ সভা না করার অভিযোগ এনে গত ২২ জানুয়ার ২০২৩ প্রেসক্লাব হলরুমে জরুরী সভা আহবান করা হয়েছিল। সভায় সাধারন সদস্যদের সম্মতিক্রমে ৩০ জানুয়ারী মধ্যে নির্বাচন কমিশন গঠনের আল্টিমেটাম দেয়া হয়। আল্টিমেটামের প্রেক্ষিতে প্রেসক্লাবের কার্যকরী কমিটি তিন সদস্য নির্বাচন কমিশন এবং তিন সদস্য বিশিষ্ট নির্বাচন ট্রাইব্যুনাল গঠন করে। নির্বাচন কমিশন গঠনের পর কমিশনের কাছে প্রেসক্লাবের বৈধ সদস্যদের সাথে সংযুক্ত করে আরও কিছু সদস্যের তালিকা প্রদান করা হয়। এ বিষয়টি কার্যনির্বাহী কমিটির কতক সদস্য নির্বাচন কমিশনের কাছে আপত্তি জানালে নির্বাচন কমিশন গত ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ কার্যকরী কমিটির সাথে একটি সভা করেন।

সভায় কার্যনির্বাহী কমিটিকে সঠিক ভোটার তালিকা প্রদানের জন্য ৭ দিনের সময় বেঁেধ দেন। কিন্তু কার্যকরী কমিটির সভাপতি হেলাল আহম্মেদ ও সাধারণ সম্পাদক জাকিরুল ইসলাম সান্টু কোন সভার আয়োজন না করে এবং সঠিক ভোটার তালিকা প্রদানের উদ্যোগ গ্রহণ না করায় নির্বাচন কমিশন গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের এই নির্বাচন পরিচালনায় অপারগতা প্রকাশ করেন। বর্তমানে কার্যকরী কমিটির মেয়াদ উত্তীর্ণ এবং গঠতান্ত্রিক সংকট দেখা দেওয়ায় উল্লেখিত ধারা মতে শহিদুল ইসলাম ফিলিপস এই সাধারণ সভা আহবান করেছেন।

এ ব্যাপারে সভা আহবানকারী শহিদুল ইসলাম ফিলিপস জানান, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় লালিত সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাব এবং সেই প্রেসক্লাবের সদস্যরা গঠনতন্ত্রকে সমুন্নত রেখে আগামী দিনগুলোতে পথ চলতে চায়। এ কারণে আমি এই সভা আহবান করে বিদ্যমান সংকট নিরসনের জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। আমি মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সকল শক্তি, প্রশাসন এবং আইন শৃংখলা বাহিনীর সার্বিক সহযোগীতা কামনা করছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর