পরীক্ষামূলকভাবে জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হচ্ছে বায়ুবিদ্যুৎ

/ ২৫ বার দেখা হয়েছে
আপডেট করা হয়েছে

কক্সবাজারের খুরুশকুলে দেশের প্রথম এবং বৃহত্তম বায়ু বিদ্যুৎ প্রকল্প পরিদর্শন করেছেন প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদবিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী। গতকাল বুধবার দুপুরে পরিদর্শনকালে উপদেষ্টা গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, দেশের বিদ্যুতের চাহিদার জোগান দিতে সরকার বেসরকারি খাতে আরও নতুন করে বায়ুবিদ্যুৎ প্রকল্প গ্রহণে সুযোগ দিচ্ছে। খুরুশকুলের প্রকল্প এ বছরের শেষের দিকে পূর্ণাঙ্গভাবে চালু করা সম্ভব হবে। আগামী দু-এক দিনের মধ্যে জাতীয় গ্রিডে ৩০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ পরীক্ষামূলকভাবে যুক্ত হবে।

পরিদর্শনকালে উপদেষ্টা প্রকল্পের কার্যালয়ের সম্মেলনকক্ষে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড এবং প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হন।

কক্সবাজার সদরের খুরুশকুলে স্থাপিত ৬০ মেগাওয়াটের বায়ু বিদ্যুৎ প্রকল্পের কাজ গত বছর মার্চে শুরু হয়। এ বছরের শেষের দিকে এটি পূর্ণাঙ্গ উৎপাদনে আসার কথা রয়েছে।

বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ইউএস-ডিকে গ্রিন এনার্জি (বিডি) লিমিটেড দেশের প্রথম ও বৃহত্তম বায়ু বিদ্যুৎ প্রকল্প স্থাপন করছে।

ইউএস ডিকে গ্রিন এনার্জি বিডি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী জহিরুল ইসলাম খান জানান, বাতাস থেকে ৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য মোট ২৩টি টারবাইন স্থাপন করা হবে। প্রতিটি টারবাইন ৩ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করবে। ইতোমধ্যে ১০টি টারবাইন স্থাপন করা হয়েছে। এ ছাড়া ব্যাকআপের জন্য স্ট্যান্ডবাই হিসেবে দুটি টারবাইন বসানো হবে।

প্রকল্পটিতে ১২০ মেগাওয়াট পর্যন্ত উৎপাদন ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়ের কাছে একটি প্রস্তাব জমা দেওয়া হয়েছে, যার জন্য আরও ২০টি টারবাইনের প্রয়োজন হবে বলেও জানান প্রকৌশলী জহিরুল।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর