সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৫৪ পূর্বাহ্ন

বাল্যবিয়ের দায়ে কনের মায়ের জেল

রিপোর্টারের নাম / ৯৭ বার দেখা হয়েছে
আপডেট করা হয়েছে

  • অনলাইন ডেস্ক:

ফেনীর পরশুরামে কিশোরী মেয়েকে বাল্যবিয়ে দেয়ার দায়ে মেয়ের মায়ের ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। সোমবার দুপুরে এঘটনা ঘটে। দণ্ডপ্রাপ্ত কিশোরীর মা আনু আক্তার মির্জানগর ইউনিয়নের সৌদি প্রবাসী মোহাম্মদ ইয়াসিনের স্ত্রী।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনা করেন পরশুরাম উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আফরোজা হাবিব শাপলা।
উপজেলার মির্জানগর ইউনিয়নের স্থানীয় মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণি পড়ুয়া তের বছর বয়সী এক শিক্ষাথীকে তার মা জোরপূর্বক বিয়ের আয়োজন করেন। বাল্যবিয়ে হচ্ছে এমন খবর পেয়ে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের কর্মকর্তা তারিন বাসার লিমা ও পরশুরাম থানা পুলিশের একটি টিমকে সাথে নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে। এসময় কিশোরীকে উদ্ধার করেন ভ্রাম্যমান আদালতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।
জানা যায়, মির্জানগর ইউনিয়নের মনিরুর গ্রামের মাদ্রাসা পড়ুয়া ছাত্রীকে পার্শ্ববর্তী ইউনিয়নের চন্দনা উচ্চ বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী মোহাম্মদ কাইয়ুমের ছেলে শহীদের সাথে কোর্ট ম্যারেজের মাধ্যমে বিয়ের আয়োজন করেন দুই পক্ষ।
বাল্যবিয়ে দেয়ার অপরাধে মেয়ের মাকে বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন ২০১৭ এর ৮ ধারা অনুযায়ী মেয়ের মাকে ছয় মাসের জেল দেয়া হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আফরোজা হাবিব শাপলা জানান, বাল্যবিবাহ নিরোধ আইনে মেয়ের মাকে ছয়মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে ছেলের বাবা পলাতক রয়েছে। ছেলের বাবা একটি বিদ্যালয়ে অফিস সহকারী হিসেবে কর্মরত রয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
Theme Created By Limon Kabir